চলে গেলেন ‘কাট-কপি-পেস্ট’র জনক ল্যারি টেসলার!

‘কাট-কপি-পেস্ট’র জনক ল্যারি টেসলার মারা গেছেন। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৭৪। জেরক্স কম্পানিতে রিসার্চের কাজ করতেন টেসলার, তবে পরবর্তীকালে কাজ করেছেন অ্যাপেল, ইয়াহু, এবং অ্যামাজনের মতো বিশ্বের বৃহত্তম কয়েকটি প্রযুক্তি সংস্থায়। বিল গেটস, স্টিব জোবস, ডেনিস রিচির মতো তিনি সাধারণ মানুষের কাছে ততটা পরিচিত না হলেও টেকনলজির সঙ্গে জড়িত মানুষের কাছে ল্যারি টেসলার একটি গুরুত্বপূর্ণ নাম।

১৯৪৫ সালের ২৪ এপ্রিল নিউইয়র্কে জন্মগ্রহণ করেন ল্যারি। স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার সায়েন্সের ডিগ্রি লাভ করেন ১৯৬০-এর দশকে। ল্যারি অ্যাপল, অ্যামাজন, ইয়াহু, জেরক্সের মতো সংস্থায় কাজ করেছেন।

পড়াশোনা শেষ করার পর তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা জেরক্স-এ যোগ দেন। সেখানে কাজ করার সময় ১৯৭০ সাল নাগাদ তিনি এই কাট-কপি-পেস্টের কনসেপ্ট আবিষ্কার করেন। সে সময় তিনি জেরক্স পালো অল্টো রিসার্চ সেন্টারে কাজ করছিলেন।

জেরক্সের পর তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা অ্যাপল-এ যোগ দেন। সেখানে তিনি ১৯৮০ থেকে ১৯৯৭-এর মাঝামাঝি পর্যন্ত কাজ করেন। অ্যাপল নেট-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট-এর দায়িত্ব সামলেছেন। এর পর তিনি নিজে একটি সংস্থা গড়ে তোলেন, ‘স্টেজকাস্ট সফটওয়ার’। এই সংস্থা, বাচ্চাদের প্রোগ্রামিং কনসেপ্ট শিখতে সাহায্য করে। পরে অ্যামাজনে যোগ দেন। সেখান থেকে যোগ দেন ইয়াহুতে। মৃত্যুর আগে তিনি সান ফ্রানসিস্কোর বে এরিয়াতে নিজের অফিসে টেকনোলজি সংক্রান্ত কনসালটেন্সির কাজ করেতেন।

তথ্যসূত্রঃ কালের কণ্ঠ

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!