চীনের ল্যাব পরিদর্শন করতে চায় ডব্লিউএইচও

মহামারি করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল সন্ধানে চীনে আরও গবেষণা এবং ল্যাবরেটরিগুলো পরিদর্শন করতে চায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। চলতি বছরের শুরুতে করোনার উৎপত্তিস্থল খুঁজতে চীনে প্রথম ধাপে তদন্ত করে সংস্থাটি। তবে পর্যাপ্ত তথ্যের অভাবে তদন্তকাজ সে সময় থমকে যায়। খবর এএফপির।

স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার ডব্লিউএইচওর প্রধান তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস চীনে দ্বিতীয় ধাপে তদন্ত নিয়ে সংস্থাটির সদস্যদের সঙ্গে একটি বৈঠক করেন। সেখানে তিনি পরের ধাপে তদন্তে পাঁচটি বিষয় অগ্রাধিকার দেওয়া প্রস্তাব করেন।

গতকালের বৈঠকে গেব্রেয়াসুস বক্তব্যের একটি অনুলিপি প্রকাশ করেছে ডব্লিউএইচও। সেখানে তদন্তে অগ্রাধিকারের প্রস্তাব পাওয়া বিষয়গুলো তুলে ধরা হয়েছে। সেগুলোর মধ্যে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালে চীনের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

এই এলাকার সংশ্লিষ্ট ল্যাবরেটরি এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলো পরিদর্শন করতে হবে। তদন্তে এসব এলাকাকে প্রাধান্য দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া উহান ও এর আশপাশের পশুপাখির বাজারগুলোয় গবেষণা চালাতে বলা হয়েছে।

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে উহানে চার সপ্তাহ অবস্থান করে ডব্লিউএইচওর একটি তদন্তকারী দল। পরে মার্চে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে তারা জানায়, ভাইরাসটি সম্ভবত বাদুড় থেকে অন্য পশুপাখির মাধ্যমে মানুষের শরীরে এসেছে। উহানের কোনো ল্যাবরেটরি থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে বলে দাবি করে আসছিলেন অনেক বিশেষজ্ঞ। ওই ধারণা একেবারেই ‘অসম্ভব’ বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করে তদন্তকারী দল। তাদের ওই মন্তব্য মানতে পারেননি যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক দেশের বিজ্ঞানী ও গবেষকেরা।

তবে উহানের ল্যাবরেটরি থেকে করোনা ছড়িয়ে পড়ার তত্ত্বকে ‘অযৌক্তিক’ বলে উড়িয়ে দেয় চীন। বিষয়টির রাজনৈতিকীকরণ করা হলে তদন্তকাজ ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে দেশটি।

source- prothom alo

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *