জামালপুরে আবারও বন্যা, ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, পানিবন্দি হাজারো মানুষ!

জামালপুরে আবারও আরেক দফা বন্যার দেখা দিয়েছে। এতে হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে । বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড জামালপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবু সাঈদ সংবাদ মাধ্যমকে জানান, দুই সপ্তাহ পানিবন্দি থাকা পর গত ২৪ ঘন্টা যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে আবারও বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৯৬ সেন্টি মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এতে জেলার দেওয়ানগঞ্জ, ইসলামপুর, মাদারগঞ্জ, সরিষাবাড়ি, মেলান্দহ উপজেলার হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। জামালপুর জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. নায়েব আলী বলেন,বন্যা মোকাবেলায় জেলায় এপর্যন্ত ৭৮৪ মেট্রিক টন জিআর চাল, ১৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা জিআর ক্যাশ, ২ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার, শিশু খাদ্যের জন্য ২ লাখ টাকা এবং গো-খাদ্যের জন্য ২ লাখ টাকা বরাদ্দ পাওয়ার পর তা পর্যায়ক্রমে বিতরণ করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের সুত্রে জানা যায়, এবারের বন্যায় জেলার ৭টির উপজেলা এবং ৮টি পৌরসভা বন্যায় ৪৯টি ইউনিয়নের ৩৫১টি গ্রাম প্লাবিত হয় । যার ফলে ৯৩ হাজার ২২৫ টি পরিবারের ৩ লাখ ৯৮ হাজার ৬২৩ জন সরাসরি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ১৩ হাজার ৩৪৩ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এছাড়া ১২৬ কিলোমিটার আংশিক কাঁচা রাস্তা ও ২৪ কিলোমিটার আংশিক পাকা রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে। বন্যার পানির তোড়ে ৪৫৭টি ঘরবাড়ি সম্পূর্ণ ও ৬ হাজার ৩০৬টি ঘরবাড়ি আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এছাড়া ৩৫৫টি নলকূপ ও ৩৮১টি ল্যাট্রিন, ৪১টি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, ১০০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ৪টি ব্রিজ কালভার্ট ও ৩ কিলোমিটার আংশিক বাঁধ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

আবু সায়েম মোহাম্মদ সা’-আদাত উল করীম,
জেলা প্রতিনিধি, জামালপুর।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published.