জামালপুরে ডিএমপি পুলিশের অনুদান পেল করোনায় মৃত দুই পুলিশ পরিবার।

জামালপুর জেলার সন্তান ঢাকায় কর্মরত অবস্থায় করোনা যুদ্ধে মৃত্যুবরণকারী পুলিশের এস আই সুলতানুল আরেফীন ও ট্রাফিক কন্সটেবল আশিক মাহমুদের পরিবারকে ২ লাখ টাকা করে মোট ৪ লক্ষ টাকা আর্থিক অনুদান দেয়া হয়েছে।

৩ জুন ২০২০, বুধবার দুপুরে জেলা পুলিশের কার্যালয় প্রাঙ্গণের সামনে মৃত দুইজন পুলিশ সদস্যের পরিবারের কাছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) দুই লাখ টাকা করে মোট ৪ লাখ টাকার অনুদানের দুইটি চেক প্রদান করেন জামালপুর পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন বিপিএম (বার) পিপিএম পক্ষে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ বাছির উদ্দিন (পুলিশ সুপার পদোন্নতি প্রাপ্ত) । এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল শাহ শিবলী সাদিকসহ জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।

সম্প্রতি কারোনাভাইসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা বিমান বন্দর এলাকার ট্রাফিক কন্সটেবল আশিক মাহমুদ এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্ট পশ্চিম বিভাগের এসআই সুলতানুল আরেফিন মৃত্যুবরণ করেন। মৃত ট্রাফিক কন্সটেবল আশিক মাহমুদের বাড়ি মেলান্দহ উপজেলার ঝাউগড়া গ্রামে এবং এসআই সুলতানুল আরেফিনের বাড়ি সদর উপজেলার হাজিপুর ফকিরপাড়া গ্রামে। উল্লেখ জনগণের সেবা করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান এই দুই পুলিশ সদস্য।

ইতিপূর্বে গত ২১মে বৃহস্পতি বার ২০২০, সকালে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে প্রাঙ্গণে তাদের পরিবারকে সহায়তার জন্য জামালপুর জেলা পুলিশ সুপার মোঃ দেলোয়ার হোসেন বিপিএম পিপিএম (বার) ১০ লাখ টাকার চেক প্রদাণ করেন । এ সহায়তা পাঠানো হয় পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে। জামালপুর জেলা পুলিশ সবসময় এই দুই পরিবারের পাশে রয়েছে বলে জানান তিনি। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত এস আই সুলতানের আরেফিন ও ট্রাফিক কনস্টেবল আশিক মাহমুদের উত্তরাধিকারীগণ বলেন- পুলিশ এই আর্থিক সহায়তা তাদের পরিবার পরিচালনায় সাহায্য করবে। তারা পুলিশের এমন সহায়তার জন্য ধন্যবাদ জানান বাংলাদেশ পুলিশকে।

আবু সায়েম মোহাম্মদ সা’-আদাত উল করীম,
জামালপুর জেলা প্রতিনিধি।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *