তীরে এসে ডুবল তরী, বাংলাদেশের মেয়েদের

আইসিসি নারী ওয়ানডে বিশ্বকাপে শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারানোর বড় সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। তবে জয়ের খুব কাছে গিয়েও হারের স্বাদ পেয়েছে নিগার সুলতানারা। শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে ক্যারিবীয় মেয়েদের দেওয়া ১৪১ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে বাংলাদেশ অলআউট হয়েছে ১৩৬-এ, হেরেছে ৪ রানে।

১৪১ রানের ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৮৭ রানেই ৭ উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ।

বিজ্ঞাপনশারমিন আক্তার ১৭, ফারজানা হক ২৩ ও নিগার সুলতানা ২৫ রান করে সাজঘরে ফিরেন। রানের খাতা খুলতে পারেননি শামিমা সুলতানা, রুমানা আহমেদ, রিতু মনি ও ফাহিমা খাতুন। এরপর অষ্টম উইকেটে নাহিদা আক্তাকে নিয়ে ১৩ রানের জুটি গড়েন সালমা খাতুন। তবে দলীয় ১১০ রানে বিদায় নেন ২৩ রান করা সালমা। জয়ের তখন দরকার ৪১ বলে ৩১ রানের। নবম উইকেট জুটিতে ১২ রান যোগ করেন নাহিদা ও জাহানারা আলম। এরপর সাজঘরে ফিরে যান জাহানারা (৮)।

শেষ উইকেটে জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ছিল ২৭ বলে ১৯ রানের। উইকেটে তখন নাহিদা ও ফারিহা তৃষ্ণা। একাই জুটিটিকে এগিয়ে নিচ্ছেলেন নাহিদা। কিন্তু দলীয় ৫০তম ওভারের তৃতীয় বলে দলীয় ১৩৬ রানের মাথায় স্টেফানি টেইলরের বলে আউট হয়ে যান ফারিহা (০)। ফলে ৪ রানের হৃদয়বিদারক হারের শিকার হয় বাংলাদেশের মেয়েরা। ২৫ রানে অপরাজিত থেকে যান নাহিদা।

এর আগে, টসে জিতে আগে ফিল্ডিং বেছে নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক নিগার সুলতানা। বাংলাদেশি মেয়েদের নিয়ন্ত্রিত বোলিয়ে নির্ধারিত ৫০ ওভারে মাত্র ১৪০ রান তুলতে সমর্থ হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ক্যারিবীয় উইকেটরক্ষক-ব্যাটার সেমাইনে ক্যাম্পবেল ৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন। বাংলাদেশের পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন সালমা খাতুন ও নাহিদা আক্তার। দুজনই ১০ ওভারে মাত্র ২৩ রান দেন। এছাড়া একটি করে উইকেট পান জাহানারা আলম, রুমানা আহমেদ ও রিতু মনি।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published.