তুরস্কে ফারিয়ার কী বিপদ, জানালেন নিজেই

গত বছরের ডিসেম্বর থেকে টানা শুটিং করছিলেন ঢাকাই ছবির নায়িকা নুসরাত ফারিয়া। বিজ্ঞাপন, সিনেমা, ওয়েব ফিল্ম—টানা শুটিংয়ে যেন অনেকটাই হাঁপিয়ে উঠেছিলেন তিনি। একটু অবকাশযাপনের জন্য উড়াল দিয়েছেন তুরস্কের ইস্তাম্বুলে। ১০ মার্চ সেখানে পৌঁছান। কিন্তু সেখানে গিয়ে পড়েছেন বিপদে। অনেকটাই বন্দী জীবন যাপন করছেন তিনি। সেখানে পড়ছে বরফ। রাজধানীর রাস্তাঘাট বন্ধ। আর এ কারণেই বের হয়ে বেড়াতে ও ঘুরতে পারছেন না এই অভিনেত্রী।
নুসরাত ফারিয়া জানান, প্রথম তুরস্কে আসা। প্রত্যাশা ছিল, কাজের ব্যস্ততা ছেড়ে একটা সুন্দর সময় কাটবে এখানে। কিন্তু সেটা আর আপাতত হচ্ছে না।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইস্তাম্বুল থেকে ফেসবুক ইনবক্সে প্রথম আলোকে তিনি বলেন, ‘এসেই তো বিপদে পড়েছি, হোটেল থেকে বের হতে পারছি না। চারদিকে বরফ আর বরফ। রাস্তাঘাট অনেকটাই বন্ধ। তাপমাত্রা মাইনাস ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। হোটেলে বসেই বেশি সময় কাটছে।’

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে নুসরাত ফারিয়া
তুরস্কের ইস্তাম্বুলে নুসরাত ফারিয়া

তবে শীতের পোশাকে মাঝেমধ্যে হোটেল থেকে আশপাশে বের হচ্ছেন বলে জানালেন ফারিয়া। বলেন, ‘আগে তো কখনো বরফ পড়ার মধ্যে ঘোরাঘুরি করা হয়নি। কেমন লাগে, তা দেখার জন্য একটু-আধটু বের হচ্ছি। শীতের পোশাক পরে রাস্তায় একটু হাঁটছি। মজাও লাগছে। তবে বেশিক্ষণ বাইরে থাকছি না। কারণ, ঠান্ডা লেগে যাওয়ার ভয়ও আছে। তা ছাড়া এখানে আমার ফুফাতো বোনেরা আছে। হোটেলের পাশেই তাদের বাসা। মাঝেমধ্যে ওদের ওখানে যাচ্ছি, আড্ডা দিয়ে সময় কাটাচ্ছি।

ইস্তাম্বুলের এই সফরে নুসরাত ফারিয়ার সঙ্গে আছেন বন্ধু ও পরিবারের সদস্যরা। ইচ্ছা ছিল হইচই করে শপিং করবেন, তুরস্কের প্রাচীন দর্শনীয় জায়গা ঘুরবেন, দেখবেন। বরফ পড়ার কারণে তা সম্ভব হচ্ছে না। জানালেন, বরফ পড়া হয়তো আরও ৫-৬ দিন থাকতে পারে। তাই ইস্তাম্বুলে আরও কিছুদিন থাকতে হবে।

নুসরাত ফারিয়া
নুসরাত ফারিয়া

এই অভিনেত্রী বলেন, ‘প্রথমে যখন আসি, তখন ইচ্ছা ছিল ১০-১২ দিন থাকব। যেহেতু বরফ পড়ার কারণে ঘুরতে পারছি না, এ কারণে এখন সিদ্ধান্ত নিয়েছি ২০ দিন থাকব। কারণ, আবার কবে আসা হবে, তার ঠিক নেই। অনেক দর্শনীয় জায়গা ঘুরে ঘুরে দেখতে চাই।’

এদিকে ১০ মার্চ তুরস্কে যাওয়ার আগে ৬ মার্চ চিত্রনাট্যকার ও পরিচালক আংশুমান প্রত্যুষের কলকাতার ছবি ‘রকস্টার’-এর শুটিং শেষ করেছেন ফারিয়া। তার আগে বাংলাদেশের ওয়েব ফিল্ম ‘অন্তরালে’ শেষ হয়।

ফারিয়া জানালেন, টানা ২০ দিন শুটিং করে ‘রকস্টার’ ছবির সব কাজ শেষ হয়েছে। বলেন, কাজটি বেশ ভালো হয়েছে। কোয়ালিটি কাজ হয়েছে। নতুন ধরনের একটি গল্পে কাজ করা হলো। পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে। ঈদুল ফিতরে মুক্তির কথা আছে ছবিটির।

নুসরাত ফারিয়া বেশ ফ্যাশনসচেতন
নুসরাত ফারিয়া বেশ ফ্যাশনসচেতন

অনেক দিন থেকেই শোনা যাচ্ছিল, কলকাতার ছবি ‘বিবাহ অভিযান’-এর সিকুয়েল ‘বিবাহ অভিযান ২’-এর শুটিং শুরু হবে। কিন্তু করোনার কারণে আটকে যায়। সিকুয়েলেও থাকছেন নুসরাত ফারিয়া। তিনি জানান, আরও আগেই শুটিং শুরুর কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে সম্ভব হয়নি। বলেন, ‘আগামী ১৫ জুন আমার শিডিউল নিয়েছেন ছবির পরিচালক বিরসা দাসগুপ্ত। থাইল্যান্ডের লোকেশনে শুটিং হবে ছবিটির।’

তথ্য সুত্রঃ প্রথম আলো

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published.